কারিনা চান ছেলে ক্রিকেটার হোক! তবে কার মতো?

বাবা বলিউডের জনপ্রিয় নায়ক এবং মা জনপ্রিয় নায়িকা। এমন বাবা-মায়ের ছেলে যে নায়ক হবে সেটা সবাই ধারণা করবে। তবে এমনটা যে হতেই হবে তার বাধ্যবাধকতা নেই। তবে বলিউডে এমনটাই ঘটে আসছে। বাবা-মা যদি রুপালী পর্দার লোক হন, সন্তান সেদিকেই ধাবিত হবে। আর এই সম্ভাবনা যে তৈমুর আলী খান পাতৌদির অনেক বেশি তা আর বলতে! কারণ সে সাইফ আলী খান এবং কারিণা কাপুর খানের প্রথম সন্তান।

সবাই যেটাই ধারণা করুক না কেন, মা কারিনা কিন্তু চাইছেন তৈমুর রুপালি পর্দায় যেন আসে। তার ইচ্ছা হলো ছেলে দাদার মতো ক্রিকেটার হবে। এই তথ্যটি জানিয়েছেন কারিনার বাবা রণধীর কাপুর। তিনি জানান, কারিণা চান তার ছেলে তৈমুর বড় হয়ে দাদা মনসুর আলী খান পাতৌদির মতো ক্রিকেট খেলুক। কারিনার এটাই ইচ্ছা যে ছেলে বড় হয়ে খেলাধুলাই করবে।

ভারতের পাতৌদি খানদানের নবম এবং শেষ নবাব মনসুর আলী খান পাতৌদি পরিবার-পরিজন থেকে বন্ধুবান্ধব—সব মহলেই ছিলেন প্রখর রসবোধসম্পন্ন, বন্ধুবৎসল একজন মানুষ। ক্রিকেটের ময়দানে তাঁর সাফল্যের ঝলকানি মুহূর্তেই তাঁর হাতে সঁপে দিয়েছিল জাতীয় দলের অধিনায়কত্বের গুরুদায়িত্ব। ৪৯৯ ইনিংসে এই সফল খেলোয়াড় মোট রান করেছিলেন ১৫ হাজার ৪২৫। ১৪ বছরে ৪৬টি টেস্ট ম্যাচের ৪০টিতেই ছিলেন জাতীয় দলের অধিনায়ক। ‘টাইগার’ পাতৌদি নামেই খ্যাত হয়েছিলেন তিনি। ছোট নাতিকে দেখতে না পেলেও তাঁর প্রতিভার বীজ ছোট্ট তৈমুরের মধ্যে থাকতেই পারে বলে আশা করছেন ভক্তরা।

গত বছরের ২০ ডিসেম্বর কারিনা কাপুর ও সাইফ আলি খানের প্রথম সন্তানের জন্ম হয়।

সূত্র: ইন্ডিয়া টুডে

মন্তব্য