মাশরাফি মাঠের বাইরে, তবুও মাঠেই থাকবেন তিনি

নিউজিল্যান্ডে শেষ টি২০ ম্যাচে ইনিংসের ১৮তম অভারে নিজের বলে কোরি অ্যান্ডারসনের শট ঠেকাতে ডান হাত বাড়িয়ে দিলে গুরুতর আঘাত পান মাশরাফি। পরোপুরি সুস্থ হতে প্রায় ৮ সপ্তাহ সময় লাগবে।

বিগত দুই বছর ভালই ছিলেন বদলে যাওয়া বাংলাদেশ টিমের অধিনায়ক মাশরাফি, দলকে সামনে থেকে নেতৃত্বি দিয়ে পাইয়ে দিয়েছেন একের পর এক সাফল্য। এই তো বছর দুই আগে ইঞ্জুরি থেকে ফিরে যখন দলে ঢুকলেন তখন হারের বৃত্তে ঘুরপাক খাচ্ছে বাংলাদেশ দল। চরিদেদিকে বিতর্কের ঝড় আরও টাল-মাতাল করে দিচ্ছিল দলকে। অধিনায়ক মুশফিক যেন চাপটা আর নিতে পাছিলেন না। সব মিলিয়ে দলের আত্মবিশ্বাস তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে। তখনই ইঞ্জুরি থেকে দলে ফিরে আসলেন মাশরাফি, দর্শদের মনে কিছুটা হলেও স্বস্তি ফিরে আসলো। আবার অনেকেই ভেবেছিল এই বুড়ো ঘোড়া দিয়ে কি হবে। আসল সময়টাই তো শেষ হয়ে গেছে অপারেশন থিয়েটারে। কিন্তু বাংলাদেশ ক্রিকেটে ধূমকেতুর মতো আবির্ভাব মাশরাফির যে তখনও অনেক কিছু দেওয়া বাকি তা অনেকেই অনুমান করতে পারেনি।

দলের টাল-মাতাল অবস্থা পরিবর্তনের জন্য নতুন অধিনায়ক খোঁজা শুর হলো, ঘটনা ক্রমে তিনি হয়ে গেলেন দলের অধিনায়ক, অনেকেই বলাবলি শরু করলো বিশ্বকাপরে আগে মাশরাফি কে অধিনায়ক করা ঠিক হয়নি, কিছুদিন পরে আবার চোটের কারণে মাঠের বাইরে চলে যাবে তখন বিশ্বকাপের আগে আবার অধিনায়ক খুঁজেতে হবে। আর বিশ্বকাপের আগে নতুন অধিনায়ক করলে তা দলের উপর বাজে প্রভাব পড়তে পারে। কিন্তু সব অনিশ্চয়তাকে ভুল প্রমানিত করে দলকে নিয়ে গেল এক অন্য উচ্চতায়। তারপর একের পর এক বড় দলকে হারিয়ে বিশ্ব ক্রিকেট মঞ্চে নতুন শক্তির উত্থানে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিলো। বদলে যাওয়া দলই টেষ্ট খেলবে যেখানে মাশরাফি থাকবেনা। কিন্তু মাশরাফির দেওয়া আত্মবিশ্বাস থাকবে।

Image Credit: indianexpress.com
Image Credit: prothom-alo.com

মন্তব্য