ইউক্রেনে সেনা পাঠাবে না কাজাখস্তান, রাশিয়ার অনুরোধ প্রত্যাখ্যান

|

ইউক্রেনে একের পর হামলা চালাচ্ছে বিশ্বের অন্যতম পরাশক্তি রাশিয়া। হামলার তৃতীয় দিনে ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের সামরিক ঘাঁটিতে হামলা চালিয়েছে রুশ বাহিনী। যদিও রুশ বাহিনীর ওই হামলা ব্যর্থ করার দাবি ইউক্রেনের। একইসঙ্গে কিয়েভজুড়ে চলছে ব্যাপক গোলাগুলি। এসবের মধ্যেই আরও শক্তি বাড়াতে কাজাখস্তানের সাহায্য চেয়েছে রাশিয়া। যদিও তাদের সেই অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করেছে কাজাখস্তান।

এনবিসি নিউজের এক প্রতিবেদনের তথ্য মতে, ইউক্রেনে সৈন্য পাঠাতে কাজাখস্তানের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছিল রাশিয়া। তবে রুশ সরকারের যুদ্ধে জড়ানোর অনুরোধ প্রত্যাখান করেছে কাজাখস্তান। একইসঙ্গে রাশিয়া কর্তৃক ইউক্রেনের দুই অঞ্চল- দোনেৎস্ক ও লুহানস্ককে স্বাধীন দেশ হিসেবে স্বীকৃতি দেবে না বলেও জানিয়ে দিয়েছে সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের এই দেশ।

কাজাখস্তান রাশিয়ার ঐতিহ্যবাহী মিত্র। তাদের কাছ থেকে রাশিয়ার সাড়া না পাওয়াকে ‘আশ্চর্যজনক উন্নয়ন’ হিসেবে আখ্যা দিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।উল্লেখ্য, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিন গত বৃহস্পতিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) ইউক্রেনে সামরিক অভিযানের ঘোষণার পর দেশটিতে হামলা শুরু করে রুশ সেনারা। দিনভর তিন দিক থেকে ইউক্রেনে হামলা চালায় তারা। এতে ইউক্রেনের ১৩৭ সেনা এবং রাশিয়ারি ১২ সেনা নিহত হয়।

যুদ্ধের দ্বিতীয় দিনও তুমুল লড়াই হয়েছে। ইউক্রেনের হোস্টোমেল বিমানঘাঁটির নিয়ন্ত্রণ নেয় রুশ বাহিনী।যুক্তরাজ্যের দাবি, চলমান এই যুদ্ধে রাশিয়ার ৪৫০ সেনা নিহত হয়েছে। যদিও ইউক্রেনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বলছে, এ পর্যন্ত ১ হাজারেরও বেশি রুশ সেনা নিহত হয়েছে।




Leave a reply