রোজিনার পদত্যাগপত্র পেয়েছেন শিল্পী সমিতির সভাপতি ইলিয়াস কাঞ্চন

|

মিশা-জায়েদ প্যানেল থেকে নির্বাহী সদস্য হিসেবে নির্বাচিত অভিনেত্রী রোজিনা ব্যক্তিগত ব্যস্ততার কথা বলে যে পদত্যাগপত্র ই-মেইলের মাধ্যমে পাঠিয়েছেন সেটা সভাপতি ইলিয়াস কাঞ্চন পেয়েছেন।

পদত্যাগপত্র পাঠিয়ে তিনি গণমাধ্যমকে বলেছিলেন, তার পদত্যাগপত্রটি গ্রহণ হলো কি হলো না তাতে তার কিছু এসে যায় না। পরে তিনি পদত্যাগপত্র প্রত্যাহারেরও ঘোষণা দিয়েছেন। কিন্তু ঘোষণা কাগজপত্র কিছু তিনি পাঠাননি শিল্পী সমিতিতে। তাহলে পাঠানো পদত্যাগপত্র কিভাবে প্রত্যাহার হবে।

এ ব্যাপারে জানতে চাওয়া হলে ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, ‘রোজিনার পদত্যাগপত্রটি আমি পেয়েছি। সেটির এখন কি হবে তা নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার আমি কেউ নই। সিদ্ধান্ত নেবে কমিটি।’ এছাড়া ইলিয়াস কাঞ্চনের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল যারা এখনো শপথগ্রহণ করেননি, তাদের শপথগ্রহণ কবে হবে।

জবাবে তিনি বলেন, ‘আমাদের গঠনতন্ত্রে শপথ নেওয়ার কথা নেই। তবে এটা হলো একটা রীতি। যদি রীতি কেউ মানতে না চায় তাহলে কিছু করার নেই। তবে পরপর তিন মিটিংয়ে কেউ না এলে তার সদস্যপদ চলে যাবে। গঠনতন্ত্রের নিয়ম-নীতি মেনেই সংগঠন চলবে। নির্বাচিত হওয়ার পর নানা কারণে আমরা এখনো কোনো মিটিং করতে পারিনি। প্রথম মিটিংয়ে আমাদের মধ্যে সব কিছু আলোচনা হবে।’ শিল্পী সমিতির একটি পদ অর্থাৎ সাধারণ সম্পাদকের পদটি নিয়ে উচ্চাদালতে শুনানি চলছে। হয়তো একটা সিদ্ধান্ত শিগগিরই চলে আসবে। তারপর যদি আইনি জটিলতা আর কিছু না থাকে তাহলে জায়েদ খান বা নিপুন – একজন সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করবেন। তখনই কমিটি পূর্ণাঙ্গ হয়ে উঠবে।




Leave a reply