রাশিয়া এবার উচ্চমাত্রার শক্তিশালী ‘নিষিদ্ধ বোমা’ ছুড়েছে

|

ইউক্রেনে রাশিয়া নিষিদ্ধ থার্মোবারিক অস্ত্র ব্যবহার করেছে। সোমবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) যুক্তরাষ্ট্রে ইউক্রেনের রাষ্ট্রদূত ওকসানা মার্কারোভা এক ব্রিফিংয়ে মার্কিন আইনপ্রণেতাদের এ কথা বলেন। খবর বিবিসির।

কংগ্রেসের ব্রিফিং থেকে বেরিয়ে আসার পর সাংবাদিকদের তিনি বলেন, তারা আজ ভ্যাকুয়াম বোমা ব্যবহার করেছে। সেই বোমা জেনেভা কনভেনশন দ্বারা নিষিদ্ধ।

হিউম্যান রাইটস ওয়াচের মতে, রাশিয়ান প্রজাতন্ত্র চেচনিয়ায় এর আগেও তাদের ব্যবহার দেখা গেছে।

থার্মোবারিক অস্ত্রগুলো প্রচলিত গোলাবারুদ ব্যবহার করে না। অস্ত্রটি উচ্চ-তাপমাত্রার বিস্ফোরণ ঘটাতে পরিবেশ থেকে অক্সিজেন নেয়। সাধারণত একটি প্রচলিত বিস্ফোরকের তুলনায় উল্লেখযোগ্যভাবে দীর্ঘ সময়ের বিস্ফোরণ তরঙ্গ তৈরি করে।

গত শনিবার মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন রাশিয়ার বেলগোরোড শহরের কাছে একটি থার্মোবারিক রকেট লঞ্চার দেখার খবর দিয়েছে।

এদিকে, ইউক্রেনে হামলা চালানোর রাশিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছেন পশ্চিমা দেশগুলো। ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) রাশিয়ান বিমান নিজেদের আকাশপথ নিষিদ্ধ করে। পাল্টা ব্যবস্থা পদক্ষেপ হিসেবে যুক্তরাজ্য, জার্মানি, স্পেন, ইতালি, কানাডাসহ ৩৬টি দেশের এয়ারলাইনসের ফ্লাইট নিষিদ্ধ করে রাশিয়া।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ইউক্রেনে হামলা চালানোর নির্দেশ দেন। এরপর ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় রুশ বাহিনী। ধ্বংস করে বিভিন্ন বিমানঘাঁটি ও গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা। হামলা থেকে বাঁচতে ইউক্রেন থেকে পালাচ্ছে লাখো মানুষ। এরইমধ্যে বেশ কয়েকটি শহরের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে সেনারা।

যুদ্ধবিরতিতে আসতে সোমবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) বেলারুশে প্রথমবার আলোচনায় বসে রাশিয়া-ইউক্রেনের প্রতিনিধি দল। তবে আলোচনায় কোনো সমাধান আসেনি। দুই দেশকেই দ্বিতীয় দফা বৈঠকে বসতে হচ্ছে।




Leave a reply