পালং শাকের যেসব পুষ্টিগুণ

|

পালং শাক মুলত শীতকালের হলেও বছরের অন্য সময়েও এর চাষ হয়। পুষ্টিগুণে সমৃদ্ধ পালং শাকে শরীরের জন্য দারুন উপকারী উপাদান রয়েছে এই শাকে। প্রতি ১০০ গ্রাম পালং শাকে প্রোটিন আছে ২.০ গ্রাম, কার্বোহাইড্রেট আছে ২.৮ গ্রাম, আঁশ আছে ০.৭ গ্রাম, আয়রন ১১.২ মি. গ্রাম, ফসফরাস আছে ২০.৩ মি. গ্রাম, অ্যাসিড (নিকোটিনিক) ০.৫ মি. গ্রাম, রিবোফ্লোবিন থাকে .০৮ মি. গ্রাম, অক্সালিক অ্যাসিড থাকে ৬৫২ মি. গ্রাম, ক্যালসিয়াম ৭৩ মি. গ্রাম, পটাশিয়াম ২০৮ মি. গ্রা, ভিটামিন-এ আছে ৯৩০০ আই. ইউ, ভিটামিন সি ২৭ মি. গ্রাম, থায়ামিন আছে .০৩ মি. গ্রাম।

১. পালং শাকে
imgmate.comsource: imgmate.com

১. পালং শাকে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন- কে থাকায় এটি ক্যালসিয়ামের ভাল উৎস। পালংয়ে থাকা ভিটামিন ডি, ফাইবার, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, ভিটামিন সি হাড় গঠনের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

বয়সজনিত চোখের ক্ষতি রোধ
imgmate.comsource: imgmate.com

২. পালং শাকে প্রচুর পরিমাণে বিটা ক্যারোটিন, লুটেইন, ক্লোরোফিল রয়েছে, যা দৃষ্টিশক্তি বাড়াতে সাহায্য করে। বয়সজনিত চোখের ক্ষতি রোধ করতেও এটি ভূমিকা রাখে।

ত্বকের সুরক্ষা
imgmate.comsource: imgmate.com

৩. পালং শাকে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন- এ রয়েছে যা ত্বকের সুরক্ষা করে। এতে থাকা অন্যান্য উপাদান বিভিন্ন ধরনের ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া এবং ভাইরাস থেকে শরীরকে রক্ষা করে।

চুল পড়া
imgmate.comsource: imgmate.com

পালং শাকে উপস্থিত ভিটামিন-এ চুল পড়া রোধেও ভূমিকা রাখে।

হৃদরোগ
imgmate.comsource: imgmate.com

৪. পালং শাকে ভিটামিন-সি’র দারুন উৎস। এটি চোখের নানা রোগ, হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়।

শরীর কর্মক্ষম
imgmate.comsource: imgmate.com

৫. পালং শাকে প্রচুর পরিমাণে ম্যাগনেশিয়াম থাকায় এটি শরীরকে কর্মক্ষম রাখতে সাহায্য করে। পালং শাক ফলিক এসিডেরও ভাল উৎস। এটি শরীরের শক্তি জোগাতে ভূমিকা রাখে।

ক্যান্সার প্রতিরোধে
imgmate.comsource: imgmate.com

৬. অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ পালং শাক ক্যান্সার প্রতিরোধে ভূমিকা রাখে। বিভিন্ন খনিজে সমৃদ্ধ পালং সুপার ফুড হিসাবে পরিচিত। এতে ক্যালরির পরিমাণ খুব কম থাকায় ওজন কমাতেও এটি ভুমিকা রাখে।








Leave a reply