শিকলে বাঁধা বেজির সঙ্গে ছবি পোস্ট করে বিপাকে শ্রাবন্তী

|

বিতর্ক যেন কিছুতেই পিছু ছাড়ে না শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়ের (Srabanti Chatterjee)। এবার বন্যপ্রাণী সুরক্ষা আইনের (Wildlife Act) ভিত্তিতে অভিযোগ দায়ের হল অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে। দোষ প্রমাণিত হলে জেল পর্যন্ত হতে পারে।

নিজের একটি সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টের জেরেই বিপাকে শ্রাবন্তী। গত ১৫ জানুয়ারি পোস্টটি করেছিলেন অভিনেত্রী। একটি বেজির সঙ্গে ছবি পোস্ট করেছিলেন অভিনেত্রী। প্রাণীর গলায় লাগানো ছিল একটি বকলস। যা একটি মোটা চেনের সঙ্গে বাঁধা ছিল। শুটিংয়ের ফাঁকেই সম্ভবত ছবিটি তোলা হয়েছিল। ক্যাপশনে শ্রাবন্তী লিখেছিলেন, “আচমকা ছোট্ট বন্ধুটির সঙ্গে দেখা হল”

শ্রাবন্তীর পোস্ট করা এই ছবি নিয়ে সেই সময়েই আপত্তি তুলেছিলেন নেটিজেনদের অনেকে। এভাবে কোনও নিরীহ প্রাণীকে বেঁধে রাখা একদম উচিত নয়। কমেন্ট বক্সে এমন কথাই জানানো হয়েছিল। এবার বন্যপ্রাণী সুরক্ষা আইন ১৯৭২-এর ৯, ১১, ৩৯, ৪৮এ, ৪৯, ৪৯এ-র ভিত্তিতে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে। খুব শিগগিরিই সল্টলেকের ওয়াইল্ডলাইফ ক্রাইম কন্ট্রোল সেল এবং ডাটা ম্যানেজমেন্ট ইউনিটের সামনে হাজিরা দিতে হবে শ্রাবন্তীকে।

বিষয়টি নিয়ে এখনই কোনও মন্তব্য করতে নারাজ শ্রাবন্তী। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রশ্নের উত্তরে এমনটাই জানিয়েছেন তিনি। তাঁর আইনজীবী এস কে হাবিবউদ্দিন জানান, সংশ্লিষ্ট দপ্তরের আধিকারিকের সঙ্গে দেখা করে তাঁরা আগে পুরো বিষয়টি সম্পর্কে ভালভাবে জানবেন। তারপরই হয়তো পরবর্তী পদক্ষেপ নির্ধারণ করা হবে।

একই সংবাদমাধ্যমকে প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে বনদপ্তরের এক উচ্চপদস্থ আধিকারিক জানিয়েছেন, “বন্যপ্রাণীকে এভাবে বন্দি করে রাখা শুধু যে অপরাধ তা নয়, শ্রাবন্তীর মতো একজন তারকা যদি এমন কাজ করেন তা দেখে অনেকে প্রভাবিত হতে পারেন। অভিনেত্রীর উচিত বনদপ্তরের সঙ্গে সহযোগিতা করা এবং বনপ্রাণ সংরক্ষণের এই লড়াইয়ে আমাদের সাহায্য করা।”




Leave a reply