ইউক্রেনে হামলার নতুন অজুহাত রাশিয়ার

|

অর্থাৎ এসব বোমা আরও ইউরোপে থাকতে পারবে না, যুক্তরাষ্ট্রকে ফেরত নিতে হবে।

মঙ্গলবার (১ মার্চ) সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় নিরস্ত্রীকরণ নিয়ে জাতিসংঘের এক সম্মেলনে তিনি এমন দাবি করেন। বললেন, ইউক্রেনের কাছে এখনো সোভিয়েত প্রযুক্তি আছে। যার মাধ্যমে এ রকম অস্ত্র উৎপাদন করা যাবে। কাজেই এই মারাত্মক ঝুঁকির বাস্তবোচিত জবাব দিতে আমরা ব্যর্থ হতে পারি না।

এভাবেই প্রতিবেশী দেশটিতে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ-পরবর্তী সবচেয়ে ভয়াবহ আগ্রাসনে নতুন অজুহাত খুঁজে বের করেছে রাশিয়া।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের নিষেধাজ্ঞার কারণে সশরীরে জেনেভায় হাজির হতে পারেননি লাভরভ। ফলে পূর্ব-ধারণকৃত একটি বার্তায় তনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে কৌশলগত স্থিতিশীলতা নিয়ে আলোচনা করতে রাশিয়া প্রস্তুত আছে। কিন্তু সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের কোনো দেশে সামরিক ঘাঁটি স্থাপন করতে পারবে না ওয়াশিংটন।

এছাড়া ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসনের নতুন ন্যায্যতা দেওয়ারও চেষ্টা করেন রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি দাবি করেন, ইউক্রেন যাতে পরমাণু বোমা বানাতে না পারে, সে জন্যই এই হামলা চালানো হয়েছে।

জেনেভায় সম্মেলনে লাভরভ যখন বক্তৃতা দিতে শুরু করেন, তখন ইউক্রেনের নেতৃত্বে যুক্তরাজ্য, জার্মানি, অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের রাষ্ট্রদূতেরা বের হয়ে যান। লাভরভের বক্তৃতা দেওয়ার সময় তারা হলের বাইরে অবস্থান করেন।




Leave a reply