খোঁজ মিলছে না বাংলাদেশের অবমুক্তকরা ৩টি বাটাগুরবাস্ক কচ্ছপের

|

গবেষণা কাজে ভারতের অবমুক্ত করা স্যাটেলাইট ট্রান্সমিটার বসানো ১০টি বিলুপ্ত প্রজাতির বাটাগুরবাস্কা কচ্ছপের একটি সুন্দরবনসংলগ্ন শরণখোলা এলাকার নদ-নদীতে বিচরণ করছে। অন্যটি ধরা পড়েছে খুলনায়। কিন্তু বাংলাদেশের অবমুক্ত করা ৩টি কচ্ছপের কোনো খোঁজ মিলছে না।

পূর্ব সুন্দরবনের করমজল পর্যটন ও বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো আজাদ কবির জানান, খুলনার দিঘলিয়ার গাজীরহাটে জেলের জালে ভারতের স্যাটেলাইট ট্রান্সমিটার লাগানো একটি কচ্ছপ ধরা পড়ে। এরপর সেটি পুলিশে হস্তান্তর করা হয়। রবিবার দুপুরে কচ্ছপটিকে সেখান থেকে এনে করমজলে রাখা হয়েছে।

করমজল বাটাগুরবাস্কা প্রজেক্টের স্টেশন ম্যানেজার আ. রব জানান, বিলুপ্ত প্রজাতির বাটাগুরবাস্কা কচ্ছপের গতি ও আচরণবিধি, বিচরণ ক্ষেত্র, খাদ্যাভ্যাস এবং প্রজনন সম্পর্কে জানতে ভারতের টাইগার প্রজেক্ট গত ১৫ জানুয়ারি স্যাটেলাইট ট্রান্সমিটার বসানো ১০টি পুরুষ কচ্ছপ সে দেশের সজনেখালীর কুলতলীর নদীতে ছেড়ে দেয়। বাটাগুরবাস্কা কচ্ছপের কার্যক্রম জানতে বাংলাদেশ বনবিভাগ, অস্ট্রিয়ার ভিজুয়েনা, আমেরিকার টিএসএ ও ঢাকার প্রকৃতি ও জীবন ফাউন্ডেশন যৌথভাবে কাজ করছে বলে আ. রব জানান।

ভারতের লক্ষ্ণৗ থেকে টার্টেল সারভাইভাল এলায়েন্স ( টিএসএ) ইন্ডিয়ার প্রজেক্ট বায়োলজিস্টে শ্রী পর্ণা দত্ত মোবাইল ফোনে বলেন, ‘বাটাগুরবাস্কা কচ্ছপের আচরণবিধি জানার জন্য গত ১৫ জানুয়ারি স্যাটেলাইট ট্রান্সমিটার লাগিয়ে ১০টি কচ্ছপ অবমুক্ত করা হয়েছিল। ঐ কচ্ছপের একটি বাংলাদেশের খুলনায় জেলেদের জালে ধরা পড়েছে এবং অপর একটি কচ্ছপ সুন্দরবনের কাছে বলেশ্বর নদী এলাকায় বিচরণ করছে । ধরা পড়া কচ্ছপটি শিগগিরই বাংলাদেশ থেকে ফেরৎ আনা হবে এবং এক বছর মেয়াদী টার্টেল সারভাইভাল এলায়েন্স প্রজেক্টের অর্জিত তথ্য আগামী ২০২৩ সালের জানুয়ারি মাসে প্রকাশ করা হবে।

সুন্দরবন বিভাগের খুলনাস্থ বন সংরক্ষক ( সি এফ) মিহির কুমার দে বলেন, বাংলাদেশের বিলুপ্ত প্রজাতির বাটাগুরবাস্কা কচ্ছপের গতি ও আচরণবিধির গবেষণায় ২০১৮ সালে সুন্দরবন অঞ্চলে স্যাটেলাইট ট্রান্সমিটার লাগানো ৫টি বাটাগুরবাস্কা কচ্ছপ নদীতে ছাড়া হয়েছিল। এরমধ্যে দুটি কচ্ছপ জেলেদের জালে আটকে মারা পড়ে। অন্য তিনটির কোনো হদিস এখন পাওয়া যাচ্ছে না। উদ্ধারকৃত ভারতীয় কচ্ছপ দুই দেশের সরকারি পর্যায়ে সিদ্ধান্তের পর ভারতে ফিরিয়ে দেওয়া হবে।




Leave a reply