মোবাইলে কল দিলেই বাজছে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ

|

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের ভাষণে ‘এবারের সংগ্রাম, মুক্তির সংগ্রাম। এবারের সংগ্রাম, স্বাধীনতার সংগ্রাম। ঘরে ঘরে দুর্গ গড়ে তোলো। তোমাদের যার যা কিছু আছে, তাই নিয়ে শত্রুর মোকাবেলায় প্রস্তুত থাকো।’ এই বক্তব্যের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু একটা গেরিলা মুক্তিযুদ্ধের দিক নির্দেশনা দিয়েছিলেন।

এদিকে, মোবাইলে ফোনকল দিলেই অপর প্রান্ত থেকে ভেসে আসছে ‘এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম’। অপর প্রান্তে কলরিসিভ হওয়ার আগ পর্যন্ত শোনা যাচ্ছে এই অংশটি।

বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণটিকে সম্মান জানাতে এবং জাতির কাছে তুলে ধরতে ভাষণের বিশেষ অংশ প্রচারের জন্য সব মোবাইল অপারেটরকে নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।

বিটিআরসির বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ১৯৭১ সালের ৭ মার্চ ঢাকার রমনায় অবস্থিত রেসকোর্স ময়দানে (বর্তমান শহীদ সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) অনুষ্ঠিত জনসভায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ঐতিহাসিক এক ভাষণ। এই ভাষণে তিনি তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের (বর্তমানে বাংলাদেশ) বাঙালিদেরকে স্বাধীনতা সংগ্রামের জন্য প্রস্তুত হওয়ার আহ্বান জানান।

সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অনুরোধে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের অনুমোদনক্রমে বিটিআরসি থেকে প্রি-কল নোটিফিকেশন হিসেবে ১ থেকে ৭ মার্চ পর্যন্ত প্রচারের নির্দেশনা দেওয়া হয়।

বিটিআরসির এক কর্মকর্তা বুধবার (২ মার্চ) এ তথ্য জানিয়েছেন।

এই ভাষণটি ১৩টি ভাষায় অনুবাদ করা হয়। ‘বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্বের অন্যান্য শ্রেষ্ঠ ভাষণ থেকে উজ্জ্বল ও বিশেষ বৈশিষ্ট্যমণ্ডিত। এ ভাষণ নিরস্ত্র বাঙালি জাতিকে রাতারাতি সশস্ত্র করে তোলে। একটি ভাষণকে অবলম্বন করে স্বাধীনতার জন্য ৩০ লাখ বাঙালি জীবন উৎসর্গ ও কয়েক লাখ মা–বোন সম্ভ্রম বিসর্জন দেন। ’

এতে বলা হয়, ৭১-এর মুক্তিযুদ্ধকালে এ ভাষণ (বজ্রকণ্ঠ) রণাঙ্গনের মুক্তিযোদ্ধাদের শত্রুর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে অনুপ্রাণিত করে। বলা যায়, এই একটি ভাষণ একটি জাতি, রাষ্ট্র, বাংলাদেশ সৃষ্টি করেছে, যা বিশ্বে নজিরবিহীন।




Leave a reply