‘এক খণ্ড সুন্দরবন’ হবে জাতীয় চিড়িয়াখানা

|

মিরপুর চিড়িয়াখানায় খাঁচাবন্দি প্রাণীদের মুক্ত পরিবেশে বিচরণের সুযোগ তৈরি করছে কর্তৃপক্ষ। এ জন্য চিড়িয়াখানার ভেতরের পরিবেশ ঢেলে সাজানো হবে। এই মহাপরিকল্পনা তৈরির কাজ করছে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে সুপরিচিত পরামর্শক প্রতিষ্ঠান বার্নার্ড হ্যারিসন অ্যান্ড ফ্রেন্ডস লিমিটেড।চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ বলছে, জুনের মধ্যেই মহাপরিকল্পনা চূড়ান্ত হওয়ার কথা। এরপর সেটি সরকারের উচ্চপর্যায়ে অনুমোদন পেলেই শুরু হবে বাস্তবায়নের কাজ। ঢাকায় বাংলাদেশ জাতীয় চিড়িয়াখানা আধুনিকায়নের মহাপরিকল্পনা তৈরিতে ২০১৯ সালে বার্নার্ড হ্যারিসন অ্যান্ড ফ্রেন্ডস লিমিটেডের সঙ্গে চুক্তি করে সরকার। এরপর প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তারা কয়েক দফা চিড়িয়াখানা পরিদর্শন করে মহাপরিকল্পনা তৈরির কাজ প্রায় শেষ করেছে। এই মহাপরিকল্পনা অনুযায়ী, জাতীয় চিড়িয়াখানাকে সিঙ্গাপুর চিড়িয়াখানার আদলে গড়ে তোলা হবে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। প্রাণীদের বিচরণের জন্য খাঁচার বদলে থাকবে আলাদা আলাদা বন্য পরিবেশ। ঘন গাছপালার পাশাপাশি জলজ প্রাণীর জন্য থাকবে হ্রদ। দৃষ্টিনন্দন এই পরিবেশ গড়ে তোলার কাজ শুরু হতে পারে আগামী বছরই।

দেখে নিন কিছু ছবি ঃ-

জাতীয় চিড়িয়াখানা
imgmate.comsource: imgmate.com
জাতীয় চিড়িয়াখানা
imgmate.comsource: imgmate.com
জাতীয় চিড়িয়াখানা
imgmate.comsource: imgmate.com
জাতীয় চিড়িয়াখানা
imgmate.comsource: imgmate.com
জাতীয় চিড়িয়াখানা
imgmate.comsource: imgmate.com
জাতীয় চিড়িয়াখানা
imgmate.comsource: imgmate.com
জাতীয় চিড়িয়াখানা
imgmate.comsource: imgmate.com
জাতীয় চিড়িয়াখানা
imgmate.comsource: imgmate.com
জাতীয় চিড়িয়াখানা
imgmate.comsource: imgmate.com








Leave a reply