আগামী বছর নারীদের পিএসএল, আইপিএল কবে?

|

সফল পিএসএল আসর আয়োজনের পর পিসিবি এখন ভাবছে নারী ক্রিকেটারদের জন্যও পিএসএলের মতো ফ্রাঞ্চাইজিভিত্তিক লিগ আয়োজনের। কাজ এগিয়েছে অনেক দূর। এ মৌসুমেই আয়োজনের ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও দলের ক্যালেন্ডারে জায়গা ফাঁকা না থাকায় আগামী বছর আয়োজন করা হবে নারীদের পিএসএল। এমন টুর্নামেন্ট বিগব্যাশে হয়, ইংল্যান্ডের দ্য হান্ড্রেড টি টোয়েন্টিতেও হয়, অথচ বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ফ্রাঞ্চাইজি টুর্নামেন্ট আইপিএলে নেই নারী ক্রিকেটারদের প্রবেশাধিকার। তবে কি পিএসএল টেক্কা দিয়ে দিচ্ছে আইপিএলকেও!

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের নারী উইংয়ের প্রধান তানিয়া মালিক বুধবার (২ মার্চ) জানিয়েছেন, পুরুষদের পাশাপাশি নারী ক্রিকেটারদের জন্য পিএসএলের মতো ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ আয়োজন করবে পিসিবি। এ বছরই ইচ্ছা থাকলেও ক্যালেন্ডারে ফাঁকা জায়গা না থাকায় সামনের বছর মাঠে গড়াবে মেয়েদের পিএসএল।

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের চেয়ারম্যান রমিজ রাজাও এই লিগ আয়োজনের বিষয়ে সম্মতি জানিয়েছেন। পিসিবির দায়িত্ব হাতে পাওয়ার পরপরই তিনি নারী ক্রিকেটের উন্নয়নের জন্য কিছু পরিকল্পনা গ্রহণ করেন। তার মধ্যে নারী দলের ক্রিকেটারদের জন্য পুরুষ দলের মতোই পাকিস্তান প্রিমিয়ার লিগের মতো টি টোয়েন্টি লিগ আয়োজনের পরিকল্পনার কথা জানান।

গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে প্রেস কনফারেন্সে তানিয়া মালিক বিশ্বকাপ নারী দলের প্রশংসা করেন। বিশ্বকাপ প্রস্তুতিতে দুই ম্যাচেই জয় পাওয়ায় দল নিয়ে আশাবাদী তিনি। বিশ্বকাপের আগে দুই প্রস্তুতি ম্যাচে পাকিস্তান দল হারিয়েছে নিউজিল্যান্ড ও বাংলাদেশ দলকে। শেষ ম্যাচে বাংলাদেশ নারী দলকে শেষ ওভারের স্নায়ুক্ষয়ী লড়াইয়ে যেভাবে হারিয়েছে তাদের দল, তার ভূয়সী প্রশংসা করেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘আমাদের টিম কম্বিনেশন বেশ ভালো। আশা করি, এই দল শেষ চারে জায়গা করে নিতে পারবে।’

দক্ষিণ পাঞ্জাব ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন যেভাবে তৃণমূল পর্যন্ত নারী ক্রিকেটকে পৌঁছে দিচ্ছে, তারও প্রশংসা করেন তানিয়া। নারী দিবস উদ্‌যাপনে আগামী ৪ মার্চ সিন্ধু ও দক্ষিণ পাঞ্জাবের মধ্যে একটি টি টোয়েন্টি ম্যাচের আয়োজন করেছে বোর্ড।

তানিয়া আরও যোগ করেন, ‘দায়িত্ব পাওয়ার পর থেকে অনেক প্রতিবন্ধকতা সত্ত্বেও নারী ক্রিকেটকে এগিয়ে নিতে কাজ করছি। নারী ক্রিকেটের উন্নয়নে যথাযথ ব্যবস্থা করা হচ্ছে। ক্রিকেটসহ সব ক্ষেত্রেই নারীদের এগিয়ে আসতে হবে।’

উল্লেখ্য, রমিজ রাজা পিসিবির চেয়ারম্যান হিসেবে তার প্রথম প্রেস কনফারেন্সেই নারী ক্রিকেটার ও অনূর্ধ্ব-১৯-এর ক্রিকেটারদের জন্য পিএসএল আয়োজনের অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

তবে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড ঘুমিয়ে আছে–এমনটা বলা যাচ্ছে না। তাদের পরিকল্পনায়ও আছে নারীদের জন্য আইপিএল আয়োজন। সম্প্রতি বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলী ইঙ্গিত দিয়েছেন, আগামী বছরেই শুরু হতে পারে মেয়েদের পৃথক ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ। এমন আয়োজনের কথা অবশ্য কয়েক বছর থেকেই বলে আসছে বিসিসিআই। কিন্তু কথা আর কাজে পরিণত হলো না তাদের। এবার পাকিস্তানের আয়োজন দেখে যদি আঁতে ঘা লাগে বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলীর।




Leave a reply