ইউক্রেনের বিমান ঘাঁটি এবং প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ধ্বংস করল রাশিয়া

|

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বৃহস্পতিবার দাবি করেছে যে, তারা ইউক্রেনের সামরিক বিমান ঘাঁটি এবং এর প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ধ্বংস করেছে।

রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় একটি বিবৃতিতে বলেছে, ইউক্রেনের বিমান ঘাঁটিতে থাকা সামরিক অবকাঠামো ধ্বংস করা হয়েছে এবং কিয়েভের বিমান প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ধ্বংস করে দেয়া হয়েছে।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বৃহস্পতিবার ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরু করেছেন এবং দেশজুড়ে বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে। ইউক্রেনীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে ‘পূর্ণ মাত্রায় আক্রমণ’ চলছে বলে সতর্ক করেছেন।

কয়েক সপ্তাহে ধরে চলা কূটনীতি এবং রাশিয়ার ওপর পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞা পুতিনকে থামাতে ব্যর্থ হয়েছে, যিনি ইউক্রেনের সীমানায় দুই লাখ সৈন্য সমাবেশ করেছিলেন।

আমি সামরিক অভিযানের সিদ্ধান্ত নিয়েছি- পুতিনের এমন টেলিভিশন ঘোষণার পর মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং অন্য পশ্চিমা নেতারা তাৎক্ষণিক নিন্দা জানিয়েছেন। এতে বিশ্বব্যাপী আর্থিক লেনদেনে নেতিবাচক প্রভাব ফেলেছে ।

এএফপি সংবাদদাতাদের মতে, ঘোষণার কিছুক্ষণ পরই ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভ এবং অন্যান্য কয়েকটি শহরে বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে।

ইউক্রেনের সীমান্তরক্ষীরা রাশিয়ান ও বেলারুশিয়ান সীমান্তে হামলার শিকার হওয়ার খবর দিয়েছে।

ইউক্রেনের নেতা ভলোদিমির জেলেনস্কি একটি ফেসবুক পোস্টে বলেছেন, রাশিয়া তার দেশের ‘সামরিক অবকাঠামোতে’ আক্রমণ করছে। তবে নাগরিকদের আতঙ্কিত না হওয়ার জন্য আহ্বান জানিয়ে বিজয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি।

ইউক্রেনীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী দিমিত্রো কুলেবা টুইট করে বলেছেন, ‘পুতিন সবেমাত্র ইউক্রেনে একটি পূর্ণ মাত্রায় আগ্রাসন শুরু করেছেন। শান্ত শহরগুলোতে ব্যাপক হামলা চলছে।’




Leave a reply