অবহেলা নয় উচ্চ রক্তচাপ নিয়ে

|

উচ্চ রক্তচাপের সাধারণত কোনো লক্ষণ থাকে না, রোগীর কোনো শারীরিক কষ্ট থাকে না। তাই এই রোগে কেউ ভুগছেন কিনা, সেটা তিনি নিজে বুঝতে পারেন না। যখন উচ্চ রক্তচাপের জটিলতা যেমন- স্ট্রোক, হার্ট অ্যাটাক, কিডনি নষ্ট হওয়া এর কোনোটি হয়, তখন রোগীর বিভিন্ন শারীরিক সমস্যা দেখা দেয়। তাই এ রোগ নির্ণয় করাই অনেক বড় চ্যালেঞ্জ। কারণ শারীরিক সমস্যা না থাকায় কেউ নিজের অর্থ ব্যয় করে প্রেসার কেমন আছে, উচ্চ রক্তচাপ আছে কিনা, তা দেখার জন্য চিকিৎসকের শরণাপন্ন হন না। আবার যদি কারও উচ্চ রক্তচাপ নির্ণয় হয়, তবে প্রায় অর্ধেক রোগী নিয়মিত চিকিৎসা গ্রহণ করেন না। উচ্চ রক্তচাপ রোগীর ১ থেকে ৩ মাস পরপর কোনো সমস্যা না থাকলেও ফলোআপে আসতে হয়, চেক করতে হয় যে প্রেসার নিয়ন্ত্রণে আছে কি নেই। এ ছাড়া রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে আসার পরও ওষুধ সারাজীবনের জন্য খেতে হয়। উচ্চ রক্তচাপের একেবারে সুনির্দিষ্ট কোনো লক্ষণ সেভাবে প্রকাশ পায় না। তবে সাধারণ কিছু লক্ষণ দেখা যায়।

দেখে নিন লক্ষণের ছবি গুলো ঃ-

মাথাব্যাথা করা
imgmate.comsource: imgmate.com

প্রচণ্ড মাথাব্যথা করা, মাথা গরম হয়ে যাওয়া এবং মাথা ঘোরানো

ঘাড় ব্যাথা করা
imgmate.comsource: imgmate.com

ঘাড় ব্যথা করা

বমি
imgmate.comsource: imgmate.com

বমি বমি ভাব বা বমি হওয়া

রাতে ভালো ঘুম হওয়া
imgmate.comsource: imgmate.com

রাতে ভালো ঘুম না হওয়া

কানে শব্দ হওয়া
imgmate.comsource: imgmate.com

মাঝে মধ্যে কানে শব্দ হওয়া

জ্ঞান হারিয়ে যাওয়া
imgmate.comsource: imgmate.com








Leave a reply