যে কারণে গ্রেপ্তার হলেন বিতর্কিত রোদ্দুর রায়

|

বর্তমান সময়টা ভার্চ্যুয়াল। আড্ডা হোক কিংবা জরুরি কাজ। বাস্তবতার পাশপাশি এখন নিত্যনতুন বাস্তবতা হচ্ছে ভার্চ্যুয়াল জগৎ। এ কথা অস্বীকার করার কোনো উপায় নেই। ঘরবন্দি সময়টাতে এর জনপ্রিয়তা কিংবা গুরুত্ব বোঝা যায়।

তার মধ্যে একটি মাধ্যম হচ্ছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম। যতই দিন যাচ্ছে এই মাধ্যমে সব কিছুই একটা নিয়ন্ত্রণের মধ্যে আসতে শুরু করেছে।

এখন হরহামেশাই নানা ধরনের বিব্রতকর, কুরুচিপূর্ণ কিংবা সত্য কথা বলেও জেলে যেতে হচ্ছে। ঠিক তেমনটাই হলেন ভারতের কলকাতায় বসবাস করা রোদ্দুর রায়। তিনি নানা ধরনের ভিডিও বানিয়ে তার বেশির ভাগই কাব্যের ছন্দে ছন্দে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আপলোড দিতেন। মূলত তিনি একজন ইউটিউবার ছিলেন।

মোদ্দাকথা তিনি একজন বিতর্কিত ভাইরাল মানুষ। তবে আবার অনেকে তার কথা পছন্দও করতেন না। ঘটনা যাই ঘটুক এবার উল্টো পথে হাঁটলেন কলকাতা পুলিশ। ভারতের গোয়া থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৭ জুন) দুপুরে তাকে গ্রেপ্তার করে কলকাতা পুলিশ। আর এর কারণ হিসেবে জানা গেছে, সম্প্রতি তিনি ফেসবুক লাইভে এসে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তৃণমূল নেতা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় সম্পর্কে কটূক্তি করেছিলেন।

ভারতীয় বেশ কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে খবরটি নিশ্চিত হওয়া গেছে।

সেখান থেকে আরও জানা যায়, পুলিশ গ্রেপ্তার করার পর ট্রানজিট রিমান্ডে গোয়ার একটি আদালতে তোলা হবে তাকে। তারপর তাকে নিয়ে আসা হবে কলকাতায়।

এর আগে, কটূক্তি করেন কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিমসহ কলকাতার পুলিশ কমিশনার এবং রাজ্যের পুলিশ-প্রশাসন সম্পর্কেও। ওই ফেসবুক লাইভের বক্তব্য নিয়েই তার বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করা হয় গত শনিবার (৪ জুন)।




Leave a reply