ছেলের বউকে ভাগিয়ে বিয়ে করলেন শ্বশুর

|

নিজের ছেলের বউকে নিয়ে পালিয়ে গেছে শ্বশুর। এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য বিরাজ করছে এবং হাস্যরসের সৃষ্টি হয়েছে। ভিক্টিমদের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, বিগত ৯ মাস আগে ছেলে বেলাল হোসেনের (২২) পছন্দের মেয়ের সাথে বিয়ে দেয় বাবা নুর ইসলাম (৪৫) । তাদের বাড়ি পঞ্চগড় জেলার আটোয়ারী উপজেলার তোড়েয়া ইউনিয়নের ছেপরাঝার গ্রামে।

বিয়ের পরেই জীবিকার তাগিদে স্ত্রীকে রেখে কর্মস্থলে চলে যায় বেলাল। মাঝেমধ্যে ছুটি পেলেই বাসায় আসে। কিন্তু সে বাসায় আসলেই তার খারাপ আচরণ করতো তার স্ত্রী। এই বিষয়ে নুর ইসলামের স্ত্রী ও বেলালের মা তসলিমা জানান, বেলাল বাসায় আসলে বউমা প্রতিদিন রাতে শোয়ার সময় আমার ছেলের সাথে খারাপ ব্যবহার করতো।

আবার মাঝেমধ্যে দেখতাম আমার স্বামী ছেলের বৌয়ের সাথে একরুমে হাসাহাসি করত। আমার সন্দেহ হলে স্বামীকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তিনি উত্তরে বলেন ছেলের বৌ হলো আমার নিজের মেয়ের মতো। আর এই বিষয় নিয়ে কথা বললেই আমাকে প্রায়সময় মা’রপিট করত।

মান-সম্মানের ভয়ে আমি বিষয়টি কাউকে বলতে পারিনি। গত কদিন আগে ভাদ্র মাসে ভাদর কাটানির উৎসব পালনের জন্য ছেলের বৌ তার বাবার বাড়িতে যায়।

মেয়ের পরিবার জানায়, খালার বাড়ি বেড়াতে যাওয়ার কথা বলে তাদের বাড়ি থেকে বের হয়। কিন্তু আগে থেকে শ্বশুর বউমা বুদ্ধি করেই রাখে যে, খালার বাড়ি না গিয়ে তারা পালিয়ে বিয়ে করে ঢাকা চলে যাবে। তারপর ঘটনার বেশ কয়েকদিন পর মেয়েই তার মাকে ফোন করে জানায় যে, আমি আমার শ্বশুরকে বিয়ে করেছি এবং বর্তমানে ঢাকায় সংসার করতেছি।

এদিকে ছেলের বৌকে বিয়ে করায় এলাকার মানুষ নুর ইসলামকে ধিক্কার ও নিন্দা জানাচ্ছে। এলাকাবাসী এবং উভয় পক্ষের পরিবার শ্বশুর-বৌয়ের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবি করছেন।








Leave a reply