আবারও জায়েদ খানের বিরুদ্ধে বিভ্রান্তি ছড়ানোর অভিযোগ

|

চিত্রনায়ক জায়েদ খানের বিরুদ্ধে নয়া অভিযোগ তুলেছেন চিত্রনায়িকা নিপুণ। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনকে কেন্দ্র করে তাদের মধ্যে আইনি লড়াই চলছে। এর মাঝেই জায়েদ খানের বিরুদ্ধে নতুন অভিযোগ তুললেন নিপুণ। দাবি করলেন, তার বিরুদ্ধে অপপ্রচার করছেন জায়েদ। এমনকি টাকা দিয়ে লোকও নাকি নিয়োগ করে রেখেছেন এ অপপ্রচারে! গতকাল শিল্পী সমিতির কার্যালয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন নিপুণ। সে সময় তিনি বলেন, হঠাৎ করে জায়েদ খানের ভক্ত বেড়ে গেছে। তিনি টাকা দিয়ে দুটি ইউটিউব চ্যানেল এবং দুটি ফেসবুক গ্রুপ পরিচালনা করছেন। এখানে প্রতিনিয়ত আমাকে নিয়ে বিভ্রান্তকর তথ্য ছড়াচ্ছেন।

আর জায়েদের পক্ষে এসব কাজ করছেন অভিনেতা জয় চৌধুরী। তরুণ নায়ক জয় চৌধুরীকে উদ্দেশ্য করে নিপুণ বলেন, তুমি মাত্র সিনেমাতে এসেছো। তোমার উচিত এসব নোংরামি বাদ দিয়ে নিজের অভিনয়ের প্রতি মনোযোগ দেওয়া। অন্যদিকে জায়েদ খানকে ইঙ্গিত করে এই নায়িকা বলেন, যেহেতু জায়েদের সঙ্গে আমার আইনি লড়াই চলছে। আমি বলব- আপনি আমার বিরুদ্ধে এ ধরনের নোংরামি থেকে বিরত থাকেন। আমাদের সবাইকে আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকা উচিত। নিপুণ জানান, তিনি তার সোর্সের মাধ্যমে এসব বিষয় জানতে পেরেছেন। এ বিষয়ে আইনি পদক্ষেপ নেবেন কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি কিন্ত কথায় কথায় বলি না যে, আইনি ব্যবস্থা নেব।
.বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতি তালিকা

আরও পড়ুন……নিপুণের বিরুদ্ধে নতুন অভিযোগ উঠেছে!

গতকালও ফেসবুক গ্রুপে নিউজ করেছে, গ্রেফতার হওয়া নিপুণকে ডিবি অফিসে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। যারা এগুলো করছেন তাদেরকে সতর্ক করে দিচ্ছি। আর আইনি ব্যবস্থা নেব কি না, তা সময়ই বলে দেবে।উল্লেখ্য, গত ২৮ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হয়েছিল বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিত্রি নির্বাচন। এতে সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থী হন নিপুণ ও জায়েদ খান। নির্বাচনের প্রাথমিক ফলাফলে জয়লাভ করেন জায়েদ। এরপর পুনর্গননাতেও তিনি জয় পান। পরবর্তীতে জায়েদ খানের বিরুদ্ধে নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগ তোলেন নিপুণ। বিষয়টি সমাধানের জন্য সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় থেকে নির্দেশ দেওয়া হয় নির্বাচনের আপিল বোর্ডকে। তারা তদন্ত শেষে জায়েদ খানের প্রার্থীতা বাতিল করে এবং নিপুণকে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় সাধারণ সম্পাদক পদে জয়ী ঘোষণা করে।এরপর জায়েদ খান আদালতের রিট করেন। সেই রিটের বিপরীতে আবার নিপুণ আপিল করেন। সবমিলে পদটি নিয়ে আইনি জটিলতা এখন চরমে। আগামীকাল বিষয়টি নিয়ে শুনানি হওয়ার কথা রয়েছে।




Leave a reply