ছোলা, আমন্ড রাতে ভিজিয়ে সকালে খালি পেটে খান আর দেখুন ফলাফল..

|

আমন্ড (Almond) ও ছোলা (Chickpea) প্রচুর মানুষ খান। তবে এই খাবার খাওয়ার সঠিক উপায় অনেকেই জানেন না। এক্ষেত্রে এই দুটি খাবার রাতভর ভিজিয়ে রেখে সকালে খেলে শরীরে মিলতে পারে নানা উপকার। ভারতীয় রীতি অনুযায়ী রোজ সকাল বেলায় উঠে প্রাতরাশ এ
ছোলা ও বাদাম ভেজানো খাওয়া চলে আসছে সেই ঋষি মুনিদের সময় থেকে। এখনো বাড়ির মা ঠাকুমারা শরীরের সুস্থতা বজায় রাখতে এই অভ্যাসটি ধরে রেখেছেন পরিবারের মধ্যে। ডায়াবেটিস, হার্টের রোগ, প্রেসারের সমস্যায় প্রতিদিন সকাল বেলায় উঠে তিনটি করে ভেজানো

আমন্ড এবং চিনা বাদাম খেতে পারলে শরীর থাকবে সম্পূর্ণ রোগমুক্ত। আমন্ড ঠাসা পুষ্টিগুনে- দিনের শুরু হোক পুষ্টি দিয়ে! আমন্ডের মধ্যে থাকা ফাইবার, ভিটামিন ই, ম্যাগনেসিয়াম, প্রোটিন চুল এবং শরীরের সুস্থতা ও মজবুতির জন্য বিশেষ প্রয়োজনীয়। আসুন জানা যাক।
১. প্রোটিনের সম্ভার- ভেজানো বাদাম ও ছোলা (Chana) হল প্রোটিনের (Protein) সম্ভার। এই দুই খাদ্যে ভালো পরিমাণে প্রোটিন থাকে। তাই প্রতিটি মানুষ চাইলে প্রোটিনের চাহিদা মেটাতে এই খাবার খেতে পারেন।
২. ওজন কমানো- আপনি ওজন কমাতে (Weight Loss) চাইলেও অবশ্যই খেতে পারেন ভেজানো আমন্ড ও ছোলা। এই দুই খাদ্যে খুব কম পরিমাণে ক্যালোরি থাকে। তবে ফাইবার বেশি থাকায় পেটে অনেকক্ষণ থাকে এই খাবার। তাই ওজন কমাতে চাইলেও অবশ্যই এই খাবার খান।

৩. হার্ট ভলো রাখে- আমন্ডে রয়েছে ফ্ল্যাভোনয়েডস। এর পাশাপাশি এই খাদ্যে রয়েছে ভালো পরিমাণে ফ্যাটি অ্যাসিড। সেই ফ্যাটি অ্যাসিড কোলেস্টেরলের (Cholesterol) মাত্রা ঠিক রাখে। পাশাপাশি শরীরে রক্ত জমতে দেয় না। তাই হার্ট ভালো থাকে।
৪. হাড়ের সমস্যায়- হাড়ের সমস্যায় আমন্ড ও ছানা বিশেষ উপকারী হতে পারে। এর মধ্যে থাকা ক্যালশিয়াম হাড় মজবুত করে তোলা। তাই বয়সকালে হাড়ের ক্ষয়জনিত বাতের ব্যথার আশঙ্কা কমে

৫. সুগার কন্ট্রোল করে- টাইপ ২ ডায়াবিটিস (Diabetes) হল জটিল এক সমস্যা। এই সমস্যা নিয়ন্ত্রণে রাখতে চাইলেও সকালবেলা ভেজানো (Soaked) আমন্ড ও ছোলা খেতে পারেন।
৬. রক্তের ঘাটতি হতে দেয় না- ভেজানো ছোলা আপনার শরীরে হিমোগ্লোবিনের মাত্রা বাড়াতে পারে। ফলে রক্তাল্পতার (Anemia) সমস্যাও অনেকটাই কমে। বিশেষত, মহিলাদের ক্ষেত্রে এই দুই খাদ্য বিশেষ কাজ করতে পারে বলে জানা যাচ্ছে




Leave a reply