পেটের সমস্যাও হতে পারে করোনার লক্ষণ! জানা থাকুক

|

করোনা (Corona) রোগটি নিয়ে প্রায় দুই বছর আমরা বাস করছি। এই সময়টায় নানা বিষয়ের সাক্ষী হয়েছে জনজীবন। বারবার চোখের সামনে উঠে এসেছে একের পর এক গবেষণা। সেই সকল গবেষণায় প্রকাশ পেয়েছে চাঞ্চল্যকর সব তথ্য। তাই বিজ্ঞানীরা বরাবরই এই রোগটি নিয়ে মানুষকে সতর্ক থাকতে বলেছেন।

আসলে করোনাভাইরাস (Coronavirus) শরীরের কোনও অংশকেই ছাড়েনি। যত দিন গিয়েছে তত সামনে এসেছে এই ভাইরাসের নানা কীর্তি। প্রথমত জানা গিয়েছিল এই ভাইরাস মূলত রেসপিরেটরি ট্র্যাক্টে সমস্যা তৈরি করে। তবে এখন বিষয়টা আর সেখানে আটকে নেই। শরীরের নানা অঙ্গে যে এই ভাইরাস (Covid-19) সমস্যা তৈরি করতে পারে এটা স্পষ্ট। এমনকী মাথাতেও পৌঁছে যেতে পারে এই ভাইরাস বলে বিভিন্ন গবেষণায় উঠে এসেছে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই ভাইরাস সাধারণত গলা ব্য়থা, জ্বর, কাশি, সর্দি ইত্যাদি সমস্যা তৈরি করে। তবে এর পাশাপাশি অনেকের পেটের সমস্যাও (Gastro Problems) দেখা যাচ্ছে। তাই প্রতিটি মানুষকে একটু এদিকওদিক দেখলেই বিশেষজ্ঞরে পরামর্শ নিতে হবে।

করোনা ও পেটের সমস্যা

করোনায় পেটের ব্য়থা (Stomach Ache) খুবই স্বাভাবিক। এক্ষেত্রে তথ্য বলছে, প্রতি ৫ জনে ১ জন করোনা আক্রান্তের শরীরে গ্যাস্ট্রোইনটেসটিনাল লক্ষণ থাকে। এক্ষেত্রে পেটে ব্য়থা থেকে শুরু করে ডায়ারিয়া (Diarrhea), বমি, নাভিতে ব্য়থা ইত্যাদি সমস্যা দেখা যেতে পারে। এছাড়া এই লক্ষণের কারণে প্রায় ২৫.৯ শতাংশ মানুষকে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়েছে।

ওমিক্রনের BA.2 ভ্যারিয়েন্টে ফের আক্রান্ত হওয়া সম্ভব? জানুন গবেষণা কী বলছে

কেমন ব্য়থা হয়?

জোয়ে কোভিড অ্যাপ বলছে, এই ধরনের পেটের ব্যথার ক্ষেত্রে পেটের মাঝখানে মূলত ব্যথা হয়। তবে পেটের সর্বত্রও ব্যথা হওয়া সম্ভব। এক্ষেত্রে রোগে আক্রান্ত হওয়ার প্রথম কয়েকদিনের মধ্যেই এই সমস্যা দেখা দেয়। মূলত ১ থেকে ২ দিনের মধ্যেই এই সমস্যা হয়। এক্ষেত্রে পেটে ব্য়থার পাশাপাশি জ্বর, মাথা ব্য়থা, শরীরে ব্যথা, গলা ব্যথা থাকতে পারে। তাই প্রতিটি মানুষকে অবশ্যই থাকতে হবে সতর্ক। এই ধরনের লক্ষণ দেখা দিলেই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। তিনিই আপনাকে সুস্থ থাকার পথ দেখাবেন।

কী করতে পারেন?

চিন্তার তেমন কিছু নেই। শুধু চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। এক্ষেত্রে নানা ধরনের ওষুধ (Medicine) যা পেটের সমস্যা দূর করতে পারে। চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী সেই ওষুধ খেতে হবে। পাশাপাশি খেতে হতে পারে ওআরএস (ORS)। তবে সবথেকে ভালো হয়, এই সমস্যাকে প্রতিরোধ করতে পারলে। সেক্ষেত্রে মেনে চলুন কোভিড বিধি।




Leave a reply