বিয়ের আসর থেকে যুদ্ধের ময়দানে ইউক্রেনের নবদম্পতি!

|

এ বছরের ৬ মে বিয়েবন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার পরিকল্পনা ছিল। কিন্তু বেধে গেল যুদ্ধ। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ইউক্রেনে হামলা চালাচ্ছে রাশিয়া।

যুদ্ধের ধামামার মধ্যেই বিয়েটা আগেভাগে সেরে ফেলতে হলো ইউক্রেনের তরুণ-তরুণীর। খবর সিএনএনের নিউজের।

যুদ্ধবিমানের বিকট শব্দের মাঝে বৃহস্পতিবার রাজধানী কিয়েভের সেন্ট মাইকেল ক্যাথেড্রালে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সারলেন স্ভিয়াতোস্লেভ ফারসিন (২৪) ও ইয়ারিনা আরিয়েভা (২১)।

পরিকল্পনা অনুযায়ী, এক সুন্দর রেস্তোরাঁর ছাদ বারান্দায় উদ্যাপন করার কথা ছিল জীবনের অন্যতম এই মুহূর্তটা।

তার পাশে বহমান দিনেপার নদী। ২১ বছর বয়সী আরিয়েভার ভাষায়, ‘কেবল আমরা ও নদী। সঙ্গে সুন্দর আলো।’

কিন্তু সেই স্বপ্ন বিসর্জন দিয়ে যুদ্ধে যোগ দিচ্ছেন তারা। এই দম্পতি জানেন না, ভবিষ্যৎ তাদের জন্য কী বয়ে আনছে। যুদ্ধের ভয়ে যখন ইউক্রেনের মানুষ দেশ ছেড়ে পালাচ্ছে, তখন বিয়ের পর নিরাপত্তার খোঁজে কোথাও যাচ্ছেন না এই দম্পতি।

তারা দৃঢ়প্রতিজ্ঞ, দেশেই থাকবেন এবং যুদ্ধ করবেন। দেশকে সাহায্য করতে স্থানীয় টেরিটোরিয়াল ডিফেন্স সেন্টার বা প্রতিরক্ষা কেন্দ্রে যোগ দিচ্ছেন এই নবদম্পতি।




Leave a reply