শুধু রান্নাতেই নয়, হলুদের হরেক রকম গুণের কথা জেনে নিন এখনই!

|

ভারতীয় রান্নাঘরের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে আছে হলুদ (Turmeric)। প্রতিটি ডাল, সবজি, তরকারি ইত্যাদিতে হলুদ (Turmeric) ব্যবহার করা হয়। এটি খাবারের স্বাদ এবং রং উভয়ই উন্নত করে। তবে হলুদের ব্যবহার এটুকুতেই সীমাবদ্ধ নয়। নানা ভাবে এই মশলা ব্যবহার করা যায়।

হলুদের চা ও টনিক

হলুদের সঙ্গে লবঙ্গ, দারচিনি, কালো মরিচ ইত্যাদি মিশিয়ে হলুদ চা তৈরি করে নেওয়া যায় খুব সহজে। অন্যান্য জিনিস মেশালে হলুদ (Turmeric) আরও শক্তিশালী হয়ে যায়। ঠাণ্ডার সময়ে অনেকেই ফ্লু আক্রান্ত হয়। তখন হলুদের টনিক বানিয়ে নেওয়া যেতে পারে। এর জন্য টনিকের সঙ্গে আদা ও মধু মেশাতে হবে। এই টনিক শুধু সর্দি, কাশি দূর করে না, শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও গড়ে তোলে।

হলুদের স্প্রেড ও ডিপ

হলুদের ডিপ দিয়ে হামুস খেতে খুব ভালো লাগে। কারণ এটা খুব সহজেই ছোলা, রসুন, লেবুর সঙ্গে মিশে যায়।

স্মুদি

হলুদ যেহেতু প্রদাহ কমাতে সাহায্য করে সেহেতু হলুদের স্মুদি (Smoothy) খুব কাজে আসে। উদ্ভিজ্জ দুধ, ফল, সবুজ শাক সবজি এসব দিয়ে স্মুদি তৈরি করে তার মধ্যে ১৪ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো মিশিয়ে এই স্মুদি তৈরি করতে হবে।

আরও পড়ুন: বাগানে অ্যালোভেরা গাছ থাকলেই কেল্লা ফতে! নিজেকে ভাল রাখতে ব্যবহার করা যাবে দশ রকম উপায়ে!

হোলির রং

হলুদের সঙ্গে বেসন মিশিয়ে প্রাকৃতিক হলুদ রঙ বানিয়ে নেওয়া যায় দোল উৎসব বা হোলির সময়। এই রঙ দিয়ে খেললে ত্বকের ক্ষতি হয় না।

আরও পড়ুন: এই সহজ উপকরণেই গরমকালে মুক্তি পান তেলতেলে নাক ও ব্ল্য়াকহেডস থেকে

দাঁত সাদা করতে

হলুদ দাঁতে ঘষলে দাঁতের হলুদ ছোপ দূর হয় এবং মাড়ি (Gums) ফোলা ও দাঁতে ব্যথাও (Tooth-Pain) কমে যায়।

আরামদায়ক কম্প্রেস

ক্যাস্টর অয়েলের সঙ্গে হলুদ মিশিয়ে মাখলে ক্ষত সেরে যায়। এই মিশ্রণ প্রদাহ কমাতেও সাহায্য করে। এছাড়া হলুদের আরও একটি অনন্য গুণ হল এটি চট করে ত্বকের সঙ্গে মিশে যায়।

ব্রথ

সবজি ও ভেষজ সেদ্ধ করে তার সঙ্গে কাঁচা বা গুঁড়ো হলুদ এবং মাকা পাউডার মিশিয়ে এই ব্রথ তৈরি করা যায়। এছাড়া মাংসের হাড় সেদ্ধ করে যে ব্রথ তৈরি হয় তার মধ্যেও হলুদ দেওয়া যায়।

পপকর্নের স্বাদবৃদ্ধি

হলুদের সঙ্গে হেম্প সিড, পুষ্টিকর ইস্ট এবং সামুদ্রিক নুন মিশিয়ে একটি সুস্বাদু মিশ্রণ বানিয়ে নেওয়া যায় যা পপকর্নে ছড়িয়ে নিলে খুব ভালো লাগে খেতে।

জুস

রসালো ফলের (Juicy Fruits) সঙ্গে হলুদ (Turmeric) ও আদা মিশিয়ে খাওয়া যায়। বিশেষ করে রাঙা আলু, সবুজ আপেল ও লেবুর রসে এটা ভালো লাগে।




Leave a reply