কিভাবে ডাঁটা খেয়েই নিয়ন্ত্রণে থাকবে সুগার! জানুন

|

ডায়াবিটিস (Diabetes) রোগটি এখন খুবই বেড়েছে। এই রোগে আক্রান্ত হলে রক্তে শর্করার (Glucose) মাত্রা থাকে না নিয়ন্ত্রণে। আসলে শরীরে এই সমস্যা হওয়ার পিছনে রয়েছে ইনসুলিনের (Insulin) কারসাজি। এক্ষেত্রে শরীরে ইনসুলিন হর্মোন পর্যাপ্ত পরিমাণে তৈরি হয় না বা ইনসুলিন হর্মোন তৈরি হলেও তা কাজ করতে পারে না। ফলে মানুষের মধ্যে সমস্যা দেখা দেয়।

ডায়াবিটিস রোগটি বেশ ভয়ঙ্কর। এই রোগে আক্রান্ত হলে শরীরে দেখা দেয় বহু সমস্যা। কারণ সকলের অজান্তেই শরীরের ভিতরে সমস্যা দেখা দেয়। এক্ষেত্রে মাথার চুল থেকে পায়ের পাতা পর্যন্ত এই রোগে আক্রান্ত হয়ে পারে। শরীরের ভিতরের গুরুত্বপূর্ণ সব অঙ্গ যেমন কিডনি (Kidney), লিভার (Liver), চোখ (Eye), নার্ভ (Nerve) ইত্যাদি সমস্যায় পড়তে পারে। তাই প্রতিটি মানুষের উচিত এই সমস্যা থেকে যতটা সম্ভব দূরে থাকা যায়, সেই ব্যবস্থা করার।

এবার চাইলেই তো আর ডায়াবিটিস (Diabetes) থেকে বাঁচা সম্ভব হয় না। সেক্ষেত্রে রোগটিকে নিয়ন্ত্রণে (Diabetes Control) রাখার চেষ্টা করতে হবে। আর এই কাজে আপনাকে সাহায্য করতে পারে ডাঁটা (Drumstick)। আপনার অতি পরিচিত এই খাদ্য রক্তে সুগার নিয়ন্ত্রণে দারুণ কার্যকরী হতে পারে। তাই আর চিন্তা নেই। তবে শুধু ডাঁটা নয়, এর ডাঁটা পাতাও (Drumstick Leaves) পারে আপনার সমস্যা দূর করতে।

ডাঁটার গুণ

ডাঁটার পাতায় থাকে ভালো পরিমাণে কুয়েরসিটিন। এটি একটি অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট (Antioxidant)। এই অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রক্তে শর্করা কমাতে পারে। এছাড়া এই গাছে থাকা ক্লোরোজেনিক অ্যাসিড ইনসুলিনের কার্যকারিতা বাড়ায়। এই কারণে সুগার নিয়ন্ত্রণে হয় সুবিধা।

এদিকে ১০০ গ্রাম ডাঁটায় ৯.৮ গ্রাম প্রোটিন থাকে। এই খাবারে ভালো পরিমাণে ওলিক অ্যাসিড ও ভিটামিন সি থাকে। এই খাদ্যে থাকে পর্যাপ্ত পরিমাণে ভিটামিন এ। এছাড়া ডাঁটায় থাকে ভিটামিন বি কমপ্লেক্স যেমন ফলেট, থায়ামিন, ভিটামিন বি৬ ইত্যাদি।

ডাঁটার অন্যান্য গুণ

ডাঁটা গোটা গাছটাই শরীর ভালো রাখতে পারে। এক্ষেত্রে এই গাছে থাকা অ্যান্টিবায়োটিক উপাদান কোষ্ঠাকাঠিন্য, গ্যাসট্রিক, আলসারেটিভ কোলাইটিসের মতো গ্যাসট্রিকের সমস্যা দূর করতে পারে। এমনকী বহু জীবাণু সংক্রমণের হাত থেকেও বাঁচাতে পারে এই ডাঁটা। তাই অবশ্যই প্রতিদিনের পাতে ডাঁটা রাখতেই পারেন।

কী ভাবে খাবেন?

ডাঁটার পাতা আপনি খেতে পারেন চিবিয়ে বা বেটে। আবার চাইলে এই পাতা গুঁড়ো করে খেতে পারেন। আবার সাধের ডাঁটা রান্না করেও খাওয়া যায়। ডাঁটা চিবিয়ে খাওয়ার মজাটাই কিন্তু আলাদা!




Leave a reply