ইউক্রেনে অস্ত্র পাঠাচ্ছে ফ্রান্স

|

ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের সামরিক ঘাঁটিতে হামলা চালিয়েছে রুশ সেনারা। এদিকে রাশিয়ার আগ্রাসন মোকাবিলায় ইউক্রেনে অস্ত্র ও সরঞ্জাম পাঠাচ্ছে ফ্রান্স। এক টুইট বার্তায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। খবর বিবিসির।

শনিবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে এক টুইট বার্তায় জেলেনস্কি বলেন, ফ্লান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল মাক্রোঁর সঙ্গে কথা হয়েছে। যা কূটনৈতিক ফ্রন্টলাইনে নতুন দিন শুরু করেছে। ফ্রান্স থেকে ইউক্রেনের উদ্দেশে অস্ত্র ও সামরিক সরঞ্জাম আসছে। যুদ্ধবিরোধী জোট কাজ করছে।

এদিকে ফ্রান্স ছাড়াও ইউক্রেনে অস্ত্র পাঠাতে সম্মত যুক্তরাষ্ট্র-ব্রিটেনসহ ২৮ দেশ। ইউরোপীয় ইউনিয়ন, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্রসহ মোট ২৮ দেশ ইউক্রেনকে অস্ত্রসহ অন্যান্য সহায়তা দিতে সম্মত হয়েছে। অস্ত্র ছাড়াও চিকিৎসা সরঞ্জামাদি ও অন্যান্য মিলিটারি সহায়তা দেবে এই ২৮ দেশ।

ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের আশে পাশের এলাকায় তীব্র লড়াই হচ্ছে। কিয়েভ শহরের কেন্দ্র থেকে কিছুটা দূরে ঘন ঘন বিস্ফোরণ হচ্ছে। ইউক্রেনের সেনা সদস্যদের আত্মসমর্পণের আহ্বান জানিয়েছেন পুতিন। সেই সঙ্গে দেশটির শাসককে ক্ষমতাচ্যুত করতে বলেছেন।

এদিকে রুশ বার্তা সংস্থা তাস জানিয়েছে, পুতিনের প্রস্তাব মেনে নিয়েছে জেলেনস্কি। তিনি পুতিনের সঙ্গে আলোচনায় বসতে রাজি হয়েছেন। রাশিয়া-ইউক্রেন সমঝোতার জন্য আলোচনার সময় ও স্থান নির্ধারণের প্রক্রিয়া চলমান বলেও জানিয়েছে তাস।




Leave a reply