পুতিনের বিরুদ্ধে রাশিয়ান তারকারা

|

ইউরোপের দেশ ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধ নিয়ে তোলপাড় গোটা বিশ্ব। দিন দিন ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে এই যুদ্ধ। ইউক্রেনে হামলা হচ্ছে প্রতিনিয়ত। রুশ বাহিনীর আগ্রাসনে ভিটা-মাটি রেখে দেশ ছেলে পালাচ্ছেন ইউক্রেনের জনগণ। আশ্রয় নিচ্ছেন পার্শ্ববর্তী দেশগুলোতে।

এ সময় যুদ্ধে আতঙ্কিত ইউক্রেনবাসীর পাশে দাঁড়িয়েছে বিশ্বের নানা দেশের জনগণ। কথা বলছেন পুতিনবিরোধী সিদ্ধান্তের। সমালোচনা করছেন গোটা রাশিয়ার। এমন সময় ইউক্রেনে বসবাসকারী মানুষদের পাশে থাকার অনুরোধ জানালেন রাশিয়ান অনেক তারকা। চলুন পাঠক, দেখে নেয়া যাক রাশিয়ান তারকাদের ইউক্রেন সমর্থনে দেয়া পোস্টগুলো।

ইনস্টাগ্রামে অনেকেই কালো স্ক্রিন পোস্ট করছেন প্রতিবাদ জানিয়ে যুদ্ধের বিরুদ্ধে কথা বলছেন সকলেই। গ্র্যামি মনোনয়নপ্রাপ্ত গায়িকা-গীতিকার রেজিনা স্পেক্টর বলেছেন, ‘আমার হৃদয় আহত। যুদ্ধের ভয়াবহতা নিয়ে এত এত চিত্রকর্ম, গান, সিনেমা তৈরি হওয়া সত্ত্বেও যুদ্ধ বাড়ছেই। শিশুদের মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেয়া হচ্ছে।’ অস্কারে মনোনয়নপ্রাপ্ত অভিনেত্রী ভেরা ফারমিগার বাবা-মা দুজনই ইউক্রেনের। দেশটির পতাকা শেয়ার করে অভিনেত্রী লিখেছেন, ‘ইউক্রেনের পাশে আছি।’

রাশিয়ান কমেডিয়ান ম্যাক্সিম গালকিন এবং টিভি ব্যক্তিত্ব ইভান আরজেন্ট ইনস্টাগ্রামে যুদ্ধের বিপক্ষে কথা বলেছেন। আরজেন্ট লিখেছেন, ‘ভয় ও কষ্টের, যুদ্ধকে না বলুন।’

রাশিয়ান পপ তারকা ভালেরি মেলাদজে একটি ভিডিও শেয়ার করে যুদ্ধের বিপক্ষে থাকার কথা জানিয়েছেন। ইনস্টাগ্রামে তার দেড় মিলিয়ন ফলোয়ার। ভিডিওটি কয়েক মিলিয়ন ভিউ হয়েছে।

রাশিয়ান র‍্যাপার অক্সিমিরন যুদ্ধের কারণে ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছেন। বলেছেন, ‘আমি জানি রাশিয়ার অধিকাংশ মানুষই এই যুদ্ধের বিপক্ষে। আমি আশাবাদী যে মানুষ এই বিষয়ে আরও কথা বলবে। যত বেশি কথা হবে, তত দ্রুত এই ভয়াবহতা শেষ হবে।’

অক্সিমিরন জানিয়েছেন, তিনি মস্কো এবং সেন্ট পিটার্সবার্গের শো বাতিল করবেন। র‍্যাপার বলেন, ‘রাশিয়ার মিসাইল যখন ইউক্রেনে পড়ছে, তখন আমি আপনাদের বিনোদন দিতে পারি না।’




Leave a reply