রাশিয়ার নতুন পরিকল্পনা কী? পুতিন কি করতে চলেছে?

|

বেলারুশে আলোচনায় বসার প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করার পর এ নির্দেশ দেয় রুশ কর্তৃপক্ষ।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ইউক্রেনের বিরুদ্ধে চলমান আক্রমণ সব দিক থেকে আরও জোরদার করতে বলা হয়েছে।

রোববার (২৭ ফেব্রুয়ারি) কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরার খবরে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

রাজধানী কিয়েভসহ ইউক্রেনের শহরগুলোতে হামলা অব্যাহত রেখেছে রাশিয়া।

গত বৃহস্পতিবার ভোরে ইউক্রেনে হামলা শুরু করে রুশ বাহিনী।

আরও পড়ুন: এবার ইউক্রেনে অস্ত্র পাঠাবে অস্ট্রেলিয়া
দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ইউরোপে এটি অন্যতম বড় হামলার ঘটনা হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে। ওই যুদ্ধের পর এবারই প্রথম ইউরোপের প্রথম দেশ হিসেবে রাশিয়ার সশস্ত্র বাহিনী স্থল, আকাশ এবং সমুদ্রপথে ইউক্রেনে সবচেয়ে বড় এই হামলা শুরু করে। এই হামলায় ইউক্রেনের বিভিন্ন শহরে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র বৃষ্টির মতো পড়েছে।

এদিকে রুশ বাহিনী ইউক্রেনের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর খারকিভে প্রবেশ করেছে।

খারকিভ আঞ্চলিক প্রশাসনের প্রধান ওলেগ সিনেগুবভ বলেছেন, শহরে রুশ সামরিক যান প্রবেশ করেছে।এ ছাড়া ইউক্রেনের দক্ষিণাঞ্চলের একটি শহর রাশিয়ার দখলে চলে গেছে বলে জানিয়েছে ইউক্রেনের গণমাধ্যম।

রাশিয়ান সৈন্যরা এখন নোভা কাখোভকা বা নিউ কাখোভকা দখল করেছে।

বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, এটি একটি ছোট শহর। কিন্তু কৌশলগতভাবে ডিনিপার নদীর তীরে অবস্থিত যা সরাসরি ক্রিমিয়ান উপদ্বীপের সঙ্গে চ্যানেল রয়েছে।




Leave a reply