রাশিয়া সময়সীমা বেঁধে দিল ইউক্রেনকে

|

ইউক্রেনে চতুর্থ দিনের মত রাশিয়ার আগ্রাসন চলছে। এমন অবস্থায় ইউক্রেনের সঙ্গে শান্তি আলোচনায় বসতে প্রস্তুত রাশিয়া। শান্তি আলোচনার জন্য বেলারুশের গোমেল শহরে প্রতিনিধি দল পাঠিয়েছে রাশিয়া। তবে বেলারুশে শান্তি আলোচনায় বসতে চায় না ইউক্রেন।

এবার শান্তি আলোচনার জন্য ইউক্রেনকে সময়সীমা বেঁধে দিয়েছে রাশিয়া। রোববার (২৭ ফেব্রুয়ারি) স্থানীয় সময় বিকেল তিনটা পর্যন্ত এই সময় দেয় রাশিয়া। রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিনের সহযোগী ভ্লাদিমির মেডিনস্কি বলেছেন, তারা তাদের দেওয়া সময় পর্যন্ত অবস্থান করবে এবং ইউক্রেনের সাড়ার জন্য অপেক্ষা করবে।

রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম আরআইএ’কে তিনি বলেন, আমরা এই নিশ্চিতকরণ পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই আলোচনার জন্য আমাদের সমকক্ষদের সঙ্গে দেখা করার জন্য অবিলম্বে রওনা হব। আমরা শান্তির পক্ষে।

এর আগে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বেলারুশে শান্তি আলোচনায় বসতে নারাজ। কারণ রাশিয়া ইউক্রেনে আক্রমণের আগে বেলারুশে সৈন্য জমা করেছিল। এজন্য তিনি অন্য কোথাও আলোচনায় বসতে চান

তিনি বলেন, রাশিয়া যদি বেলারুশ ভূখণ্ড থেকে ইউক্রেনে হামলা বন্ধ করে তবে মিনস্কে আলোচনা সম্ভব হতে পারে। এছাড়া অন্যান্য শহর আলোচনার স্থান হিসাবে ব্যবহার করা যেতে পারে। আমরা আলোচনার স্থান হিসেবে ওয়ারশ, ব্রাতিসলাভা, বুদাপেস্ট, ইস্তাম্বুল, বাকুর নাম প্রস্তাব করেছি।

তিনি আরও বলেন, আমরা অবশ্যই শান্তি চাই। আমরা সাক্ষাৎ করতে চাই। আমরা যুদ্ধ শেষ করতে চাই। অন্য এমন একটি দেশের যেকোনো শহর আমাদের জন্য যথাযথ হবে; যাদের ভূখণ্ড থেকে আমাদের দিকে ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়নি। সৎ আলোচনার জন্য এটিই একমাত্র উপায় এবং সত্যিই যুদ্ধের অবসান ঘটাতে পারে।




Leave a reply